রাজধানীর কোতোয়ালি থানার মিটফোর্ডে ওষুধ মার্কেটে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। অভিযানে নকল, সরকারি ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রয়ের অভিযোগে র‌্যাব-১০ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত ৫০টি ফার্মেসিকে ৬০ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করেছেন। এ সময় ২০ কোটি টাকা মূল্যের ভেজাল ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ করা হয়।

বুধবার (১ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে র‌্যাবকে সহযোগিতা করে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব ১০ এর কোম্পানি কমান্ডার (সিপিসি-১) মুহম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী।

 

র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মো. কাইয়ুমুজ্জামান খান জানান, কোতোয়ালি থানার মিডফোর্ট হাজী রানী মেডিসিন মাকের্টে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে দেখা যায়, বিভিন্ন দোকানে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের অনুমোদনহীন বিনামূল্যে বিতরণযোগ্য সরকারি ওষুধ, নকল ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ এবং আমদানি নিষিদ্ধ ভারতীয় ওষুধ বিক্রি হচ্ছে। এসব ওষুধ বিক্রির দায়ে ৫০টি ফার্মেসিকে ৬০ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ওই মার্কেট থেকে প্রায় ২০ কোটি টাকা মূল্যের বিক্রয় নিষিদ্ধ নকল ও ভেজাল ওষুধ জব্দ করা হয় এবং সেগুলো ডেমরা ডাম্পিং স্টেশনে জনসম্মুখে ধংস করা হয়।
তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে বিতরণের জন্য এসব ওষুধ খোলা বাজারে বিক্রয় করে জনগণকে ন্যায্য পাওনা হতে বঞ্চিত করা হচ্ছে। এছাড়াও নকল ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ বাজারজাত করায় জনস্বাস্থ্য চরম বিপর্যয়ের মুখে।’ জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি এসব কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত অপরাধীদের গ্রেফতার ও আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।