credit card

কার্ডে লেনদেন দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে নেয়ার ফিল্ড কমিউনিকেশন (এনএফসি) প্রযুক্তির অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশে ব্যাংক। এ সেবার মাধ্যেমে কার্ডে অর্থ পরিশোধ করার যন্ত্রের কাছে গিয়ে অর্থ পরিশোধ করা যাবে। সেক্ষেত্রে সোয়াপ বা পিন কোডের প্রয়োজন হবে না। বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস্ ডিপার্টমেন্ট এ সংক্রন্ত সার্কুলার সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, এ সেবার মাধ্যমে কার্ডে লেনদেন দ্রুত নিষ্পত্তি করা যাবে। আধুনিক এ সেবার মাধ্যমে গ্রহককে সময় নিয়ে কার্ড সোয়াপ, পাসওয়ার্ড বসানোর প্রয়োজন হবে না। কয়েকটি বেসরকারি ব্যাংকের আবেদনের প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এনএফসি প্রযুক্তির অনুমোদন দিয়েছে। প্রাথমিকভাবে শুধু ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে সর্বোচ্চ তিন হাজার টাকা লেনদেন করা যাবে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, তথ্য প্রযুক্তির বিকাশের সঙ্গে সঙ্গে দেশে ইলেকট্রনিক ব্যাংকিং সেবার উপর নির্ভরশীলতা তথা কার্ডভিত্তিক লেনদেন ক্রমান্বয়ে গ্রাহকের কাছে জনপ্রিয় হচ্ছে। ইলেকট্রনিক পেমেন্ট ব্যবস্থার এ অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি গ্রাহকদের স্বার্থ সংরক্ষণ, নিরাপত্তা, ঝুঁকি হ্রাস ও গ্রাহক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এনএফসি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এনএফসি প্রযুক্তির কার্ডভিত্তিক লেনদেনের জন্য পিন ও দুই স্টোর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যবহারের বাধ্যবাধকতা শিথিল করা হলেও এসএমএস এলার্ট সার্ভিসের মাধ্যমে প্রতিটি লেনদেনের তথ্য তাৎক্ষণিকভাবে অবহিত করতে হবে। এ ধরনের কার্ডের মাধ্যমে তিন হাজার টাকার বেশি হলে তা কন্ট্রাক্ট এবং পিন ভিত্তিক হতে হবে। এটিএম মেশিন এবং কার্ড নট প্রেজেন্ট লেনদেনের ক্ষেত্রে এনএফসি প্রযুক্তি প্রযোজ্য হবে না।

এ ইলেক্ট্রনিক লেনদেনের নিরাপত্তা জোরদার এবং এর সুশৃঙ্খল ও যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকরণসহ এ ধরনের কার্ডের মাধ্যমে প্রতিটি লেনদেনের সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণসহ পিন কোর্ডের বাধ্যবাধকতা পুনর্বিবেচনা করা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, কেবলমাত্র ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা এ লেনদেন করতে পারবে। ক্রেডিট কার্ড-ভিত্তিক লেনদেনের সর্বোচ্চ সীমা তিন হাজার নির্ধারণ করা হয়েছে। এটি দেশের অভ্যন্তরে সব ধরনের মার্চেন্ট অবস্থানে এ প্রযুক্তির মাধ্যমে লেনদেনের জন্য উল্লিখিত নির্ধারিত সীমা প্রযোজ্য হবে।

গ্রাহকের পূর্বানুমতি ছাড়া এনএফসি কার্ডে লেনদেন কার্যকর করা যাবে না। গ্রাহক তার নিজস্ব পছন্দ এনএফসির সীমার নিচের লেনদেন করতে পারবে।

ব্যাংকসমূহকে হারিয়ে যাওয়া/চুরি হওয়া এনএফসি প্রযুক্তিযুক্ত কার্ড সম্পর্কে গ্রাহকের নিকট হতে একাধিক উপায়ে তথ্য-অভিযোগ গ্রহণের ব্যবস্থা রাখতে হবে। গ্রাহকের নিকট হতে যে কোনো ধরনের অভিযোগ প্রাপ্তির সঙ্গে সঙ্গে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।