AMZAD

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম মেজর জেনারেল (অব.) আমজাদ খান চৌধুরীর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রোববার বিকেলে রাজধানীর বাড্ডার প্রগতি সরণির প্রাণ-আরএফএল সেন্টার ও বিভিন্ন কারখানায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আহসান খান চৌধুরী, গ্রুপের বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। দোয়া মাহফিলের আগে সামনে এসে অনেকে আমজাদ খান চৌধুরীর সঙ্গে নিজেদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন।
দোয়া মাহফিলে আমজাদ খান চৌধুরীর ছোট ছেলে ও প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের সিইও আহসান খান চৌধুরী বলেন, ‘বাবাকে কখনও ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে শর্টকাট কিংবা অসদুপায় অবলম্বন করতে দেখিনি। তিনি সবকিছু সিস্টেম্যাটিকভাবে করতেন। আমাকে বাবা সবসময় বলতেন ভালো ব্যবসা করতে, যেটা আগামী দিনে মানুষের জন্য ভালো হয়। বাবার অনেক স্বপ্ন পূরণ হয়েছে, প্রাণ-আরএফএল স্কুল হয়েছে, ২৪ ঘণ্টার অপারেশন সুবিধাসহ হাসপাতাল হয়েছে। আপনারা দোয়া করবেন যাতে আমার বাবার সব স্বপ্ন পূরণ করতে পারি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের সবাইকে মানুষ হিসেবে ভালো হতে হবে। আমরা যদি ভালো মানুষ না হয়ে ব্যবসায়ী আকারে হই তাহলে হবে না। যদি মানুষ আকারে ভালো হই তাহলে আমাদের কর্মকাণ্ডের ফলাফল পৃথিবী ভোগ করবে।’

হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে দোয়া মাহফিল

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান নির্বাহী মেজর জেনারেল আমজাদ খান চৌধুরী (অব.)-এর ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে এক দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। দিনব্যাপী কুরআন তেলাওয়াত, বাদ আসর প্রতিষ্ঠানের বিভাগীয় প্রধানদের উপস্থিতিতে হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের মহাব্যস্থাপক হাসান মো. মঞ্জুরুল হক-এর সভাপতিত্বে এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া মাহফিলের শুরুতে সভাপতি প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতার জীবনী নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন। এরপর দোয়া পরিচালনা করেন প্রাণ-আরএফএল জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস। দিনটি উপলক্ষে হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের সদস্যরা কালো ব্যাজ ধারণ করেন।

উল্লেখ্য, আমজাদ খান চৌধুরী ১৯৩৯ সালের ১০ নভেম্বর নাটোর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮১ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী থেকে অবসর নেয়ার পর রংপুর ফাউন্ড্রি লিমিটেড (আরএফএল) প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের যাত্রা শুরু করেন। তার নিজ হাতে গড়া প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ বর্তমানে দেশের শীর্ষস্থানীয় খাদ্য ও প্লাস্টিক পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান। এ গ্রুপে বর্তমানে সরাসরি কর্মরত রয়েছেন প্রায় এক লাখ কর্মকর্তা-কর্মচারী। বিশ্বের ১৪১টি দেশে নিয়মিত রফতানি হচ্ছে প্রাণ-আরএফএল পণ্য।

আমজাদ খান চৌধুরী মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই), ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিইসি), ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (আইডিসিওএল), বাংলাদেশ ডেইরি অ্যাসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের সভাপতি, পরিচালকসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।

২০১৫ সালের ৮ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।