cup

চব্বিশ দিন আগে বিশ্বের সেরা ৩২টি দল নিয়ে শুরু হয়েছিল ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ খ্যাত ফুটবল বিশ্বকাপ। ২৪ দিনে শেষ হয়েছে বিশ্বকাপের তিনটি রাউন্ড, বাদ পড়েছে ২৮টি দল। এই আসর শেষের ৬ দিনে শিরোপাস্বপ্ন বেঁচে আছে কেবল ৪টি দলের।

লাতিন আমেরিকান দলগুলোর ব্যর্থতায় টিকে থাকা ৪টি দলই রয়েছে ইউরোপিয়ান অঞ্চলের। কোয়ার্টার ফাইনালে নিজেদের ম্যাচ শেষে শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করা এই ৪টি দল হলো বেলজিয়াম, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া।
ফ্রান্স ও ইংল্যান্ড একবার করে বিশ্বকাপ জিতলেও এখনো বিশ্বকাপ ট্রফি ছোঁয়া হয়নি বেলজিয়াম ও ক্রোয়েশিয়ার। দুই দলই মাত্র দ্বিতীয়বারের মতো খেলতে নামবে সেমিফাইনাল। এর আগে ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়া ও ১৯৮২ সালের বিশ্বকাপে বেলজিয়াম তৃতীয় হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

চলতি বিশ্বকাপে এখনো পর্যন্ত কোন ম্যাচে হারেনি বেলজিয়াম বা ক্রোয়েশিয়া। গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচ জিতেই দ্বিতীয় পর্ব নিশ্চিত করে দুই দল। পরে দ্বিতীয় রাউন্ডে বেলজিয়াম হারায় জাপানকে ও ক্রোয়েশিয়া বিদায় করে দেয় ডেনমার্ককে।

শেষ আটের ম্যাচে নিজেদের অন্যতম সেরা ম্যাচ খেলে বেলজিয়াম। শক্তিশালী ব্রাজিলকে বাক্সবন্দী করে ২-১ গোলের জয় ছিনিয়ে নেয় তারা। শেষ হয়ে যায় ব্রাজিলের ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের স্বপ্ন, আরো দৃঢ় হয় বেলজিয়ানদের শিরোপা জেতার বিশ্বাস।

অন্যদিকে ক্রোয়েশিয়াকে সেমিফাইনালের টিকিট পেতে বেশ ঘাম ঝরাতে হয়। স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে শেষ আটের ম্যাচে ১-০ গোলে পিছিয়ে যাওয়ার পর দুই গোল করে এগিয়ে যায় তারা। পরে রাশিয়ানরা গোল শোধ করে দিলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে গোলরক্ষক সুবাসিচের দৃঢ়তায় নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো সেমিফাইনাল খেলার টিকিট পায় তারা।

তবে সেমিতে বেলজিয়াম ও ক্রোয়েশিয়া একে অপরের মুখোমুখি হবে না। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে বেলজিয়ামের প্রতিপক্ষ এখনো পর্যন্ত কোন ম্যাচ না হারা ফ্রান্স ও ক্রোয়েটদের বিপক্ষে খেলবে এখনো পর্যন্ত দুর্দান্ত খেলা ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের জন্য সেমিতে আসার রাস্তাটা ছিল তুলনামূলক সহজ। গ্রুপপর্বে দুই ম্যাচ জিতে রানারআপ হওয়ায় শেষ ষোলতে তাদের সামনে পড়ে কলম্বিয়া। সে ম্যাচে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে জিতে শেষ আটের টিকিট পায় তারা। পরে সুইডেনকে ২-০ গোলে হারিয়ে সেমিতে পৌঁছে যায় হ্যারি কেইনের দল।

সেই তুলনায় ফ্রান্সের সামনে ছিল বড় বড় সব দল। গ্রুপ পর্বে ২ জয় ও ১ ড্র নিয়ে শেষ ষোলতে তারা পায় দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাকে। সেই ম্যাচে দাপট দেখিয়ে ৪-৩ গোলে জেতে তারা। পরে শেষ আটের লড়াইয়ে উরুগুয়ের রক্ষণ দূর্গ চূর্ণ-বিচূর্ণ করে ২-০ গোলের জয়ে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ শিরোপার আরো কাছে পৌঁছে যায় ফ্রান্স।

আগামী ১০ ও ১১ জুলাই মাঠে গড়াবে শেষ চারের ম্যাচ দুটি। এই দুই ম্যাচে শিরোপা লড়াই থেকে ছিটকে যাবে আরো দুইটি দল। প্রথম দিন সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামে খেলবে ফ্রান্স ও বেলজিয়াম। পরের দিন লুঝনিকি স্টেডিয়ামে খেলতে নামবে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া।