sadik

সৈয়দ সাদিক আবদুল রহমান। মাত্র ২৫ বছর বয়সেই মন্ত্রিত্ব পেয়ে মালয়েশিয়ার সবচেয়ে কনিষ্ঠতম মন্ত্রীর খাতায় নাম লেখালেন তিনি। আজ ২ জুলাই সোমবার যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন তিনি। খবর সিঙ্গাপুর ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম দ্য স্ট্রেইট টাইমস, সাউথ চাইনা মর্নিং পোস্ট। এতো অল্প বয়সে মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় সৈয়দ সাদিক প্রশংসার পাশাপাশি নানা প্রশ্নের সম্মুখীনও হচ্ছেন। তিনি একটি মন্ত্রণালয়কে নেতৃত্ব দেয়ার মতো যোগ্য কি না কেউ কেউ এ প্রশ্নও তুলেছেন। কিন্তু তিনি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। সৈয়দ সাদিক আবদুল রহমান বলেন, সব সন্দেহবাদীকে তিনি প্রমাণ করে দেবেন, তিনি এ নিয়োগ পাওয়ার যোগ্য।

জানা গেছে, রাজনীতিতে সক্রিয় থাকতে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তিও প্রত্যাখ্যান করেছিলেন এ কনিষ্ঠতম মন্ত্রী। তার রাজনীতির গুরু ডা. মাহাথির মোহাম্মদ। আগামী ৬ ডিসেম্বর সৈয়দ সাদিকের বয়স ২৬ বছর পূর্ণ হবে। রাজনীতিতে যোগদানের পূর্বে সাদিক বিতার্কিক হিসেবে দেশটিতে জনপ্রিয় ছিলেন।

এশিয়ান ব্রিটিশ পার্লামেন্টারি ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি বেস্ট স্পিকার নির্বাচিত হয়েছিলেন। মালয়েশিয়ার ১৪তম জাতীয় নির্বাচনে জয়লাভ করে তখনই আলোচনার জন্ম দেন সৈয়দ সাদিক। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে জামাল উদ্দিন দেশটির সর্বকনিষ্ঠ মন্ত্রী হিসেবে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করছিলেন। দায়িত্ব গ্রহণকালে জামাল উদ্দিনের বয়স হয়েছিল ৩৭ বছর।