shikkha

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন ও যুগ্ম সচিব শহিদুল ইসলামের ক্রসফায়ারে মৃত্যু কামনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন শিক্ষা ক্যাডারের এক শিক্ষক। দেশের একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে বদলি করায় কয়েকদিন আগে তিনি এ স্ট্যাটাস দেন। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ২৪ বিসিএসের দর্শন বিভাগের শিক্ষক রবিউল আওয়াল জয়পুরহাট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে বাদানুবাদ করায় তাকে সন্দ্বীপ কলেজে বদলি করা হয়। তিনি পুনরায় জয়পুরহাট সরকারি কলেজের ফেরত যেতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কলেজ শাখার অতিরিক্ত সচিব ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন, যুগ্ম সচিব শহিদুল ইসলামসহ অনেকের কাছে ঘুরলেও কেউ তাকে পাত্তা দেয়নি।
পরে তিনি ক্ষোভে ওই দুই কর্মকর্তার ক্রসফায়ারে মৃত্যু কামনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন।

মাউশি সূত্র জানায়, ঈদের আগে ঘটনাটি হওয়ায় এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। তবে বিষয়টি তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মাউশিকে নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বলেন, বিভাগীয় কর্মকর্তা হিসেবে তো নয়ই, একজন সাধারণ মানুষও এভাবে আরেকজনের মৃত্যুর কামনার কথা বলতে পারেন না। ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়া ওই শিক্ষকের ব্যাপারে তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।