alig

বরিশাল মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা থেকে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে সাদিক আবদুল্লাহকে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানানো হয়েছে। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সাদেক আবদুল্লাহকে মনোনয়ন দেয়ার জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এর প্রেক্ষিতে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদেক আবদুল্লাহর নাম কেন্দ্র পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বরিশাল মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ।
সোমবার দুপুরে বরিশাল সার্কিট হাউজ মিলনায়তননে পৃথকভাবে মহানগর আওয়ামী লীগ এবং জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন পদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বরিশাল জেলার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যবৃন্দ, পৌর মেয়র এবং উপজেলা চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।

মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল। তিনি বলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও মেয়র শওকত হোসেন হিরনের মৃত্যুর পর ঝিমিয়ে পড়া মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগকে একটু একটু করে সু-সংগঠিত করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদেক আবদুল্লাহ।

তিনি মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ প্রতি অনুরোধ করে বলেন, কেন্দ্র থেকে প্রার্থী বাছাইয়ে ভুল করলে মেয়র নির্বাচনে জয় কষ্টসাধ্য হয়ে পড়বে।

সেরনিয়াবাত সাদেক আবদুল্লাহকে মেয়র পদে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়ে আরও বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য জেবুন্নেসা আফরোজ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট একে এম জাহাঙ্গির হোসাইন, সহ-সভাপতি ও বরিশাল উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ সাইদুর রহমান রিন্টু প্রমুখ।

জেলা আওয়ামী লীগের সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপি। সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য তালুকদার মো. ইউনুস বলেন, শেখ হাসিনা শুধু একজন প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি একজন দক্ষ দল পরিচালক ও নেতৃত্বদানকারী। তাই আসন্ন বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাাহকে মেয়র পদে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

সভায় আরও বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. হোসেন চৌধুরী, সৈয়দ আনিসুর রহমান, অ্যাডভোকেট আ. রসিদ খান প্রমুখ।