mosarrof

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু হয়ে গেছে। ব্যাংকগুলো দেউলিয়া হয়ে গেছে। ব্যবসা-বাণিজ্য নেই। তাই আজকে আমরা কষ্টের মধ্যে আছি। দেশ অত্যন্ত কঠিন অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এই সময়ে আমাদের বাজেট সেশন শুরু হয়েছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি বিরাট বাজেট দেয়া হবে। গত বছর ঘাটতি বাজেট দেয়া হয়েছিল। গত বছরের উন্নয়ন বাজেটকে কাটছাট করে কমিয়ে আনতে হয়েছিল। এ বছর নির্বাচনী বাজেট। আরও বড় বাজেট দিয়ে কেন জনগণকে প্রতারণা করা হচ্ছে। নির্বাচনের বছর এই ধরনের বাজেট জনগণের সঙ্গে প্রতারণা।

মঙ্গলবার রাজধানীর পান্থপথে সামারাই কনভেনশন সেন্টারে ড. মোশাররফ ফাউন্ডেশন আয়োজিত ইফতার মাহফিলে বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি এই ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান।
মোশাররফ বলেন, গত বছরের বাজেট দিয়ে তারা রাজস্ব আদায় করতে পারেনি। এ বছরও একটা বিশাল ঘাটতির বাজেট পেশ করে জনগণকে প্রতারিত করা হবে। ঋণ নিতে নিতে এমন অবস্থায় পৌঁছাবে যে, ঋণের সুদ দিতে দিতে, আজকে আপনারা দেখেছেন ব্যাংকগুলো থেকে আওয়ামী লীগের নেতারা যেভাবে টাকাগুলো লুট করে নিয়ে গেছে, এই অবস্থায় যে বাজেট দেয়া হচ্ছে, এটা লোক দেখানো। জনগণকে ঠকানো, নির্বাচনী বাজেট ও জনগণকে ধোঁকা দেয়ার বাজেট। তাই আমরা আশা করি ধোঁকা না দিয়ে আমাদের সামর্থ অনুযায়ী নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে যে উন্নয়ন করবো, সেই বাজেট যেন আগামী দিনে পাস হয়।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ও বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মারুফ হোসেন। উপস্থিত ছিলেন নেত্রকোনা জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দুলাল, হোমনা উপজেলা সাবেক চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম, বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন মুফতি নাসিম উদ্দিন কাসেমী।