dig-mizan

ক্ষমতার অপব্যবহার, অবৈধ সম্পদ অর্জন ও দুর্নীতির অভিযোগে বহুল আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আগামী ৩ মে দুদক কার্যালয়ে তাকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা (পিআরও) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য। তিনি জানান, গণমাধ্যমে সংবাদ এসেছে যে, তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। এছাড়া তার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে সম্পদ অর্জন ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়ায় দুদক কার্যালয়ে তলব করা হয়েছে।
আরও পড়ুন >> ডিআইজি মিজানুর রহমানকে প্রত্যাহার

মিজানুর রহমানের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের তথ্য চেয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডসহ ছয়টি সংস্থায় চিঠি দেয় দুদক। দুদকের উপ-পরিচালক ও অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারীর স্বাক্ষরে বিভিন্ন সংস্থায় তথ্য চেয়ে চিঠি দেয়া হয়।

আরও পড়ুন >> ডিআইজি মিজানের ‘স্বর্ণকমল’ বাড়ি

প্রসঙ্গত, অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে এক নারীকে বিয়ে করার অভিযোগে গত ৯ জানুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনারের (ডিআইজি) পদ থেকে মিজানুর রহমানকে প্রত্যাহার করা হয়। বর্তমানে তিনি পুলিশ সদর দফতরে সংযুক্ত রয়েছেন।

এছাড়া তার বিরুদ্ধে এক সংবাদ উপস্থাপিকাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি ও হত্যার হুমকি দেয়ারও অভিযোগ রয়েছে।

আরও পড়ুন >> ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে ‘ব্যবস্থা নেবে’ মন্ত্রণালয়

বিতর্কিত এ পুলিশ কর্মকর্তার নামে-বেনামে শত কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে বলে অভিযোগ পেয়েছে দুদক। অভিযোগে বলা হয়েছে, ডিআইজি মিজানের নামে-বেনামে বহু সম্পদ রয়েছে যা তার আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। এছাড়া তার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে। এসব অভিযোগ আমলে নিয়ে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক।