trumph

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বিপজ্জনক, ‘নৈতিকভাবে অযোগ্য’ নেতা বলে অভিহিত করেছেন এফবিআইয়ের সাবেক পরিচালক জেমস কোমি।

ট্রাম্প প্রাতিষ্ঠানিক ও সাংস্কৃতিক প্রথাগুলোর ‘মারাত্মক ক্ষতি’ করছেন বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

এবিসি নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কোমি এসব কথা বলেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। রোববার রাতে ওই সাক্ষাৎকারটি সম্প্রচার করে এবিসি নিউজ।

২০১৬ সালে ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট প্রার্থী থাকার সময় তার প্রচারণা শিবিরের সঙ্গে রাশিয়ার কথিত যোগাযোগ ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সম্ভাব্য হস্তক্ষেপ নিয়ে এফবিআইয়ের তদন্ত চলাকালে গত বছরের মে-তে কোমিকে বরখাস্ত করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার কথা অস্বীকার করেছে রাশিয়া এবং ট্রাম্পও কোনো অশুভ আঁতাতের কথা অস্বীকার করেছেন।

এফবিআইয়ের সাবেক পরিচালক জেমস কোমি। ছবি: রয়টার্স এফবিআইয়ের সাবেক পরিচালক জেমস কোমি। ছবি: রয়টার্স ২০১৩ সালে মস্কো সফরের সময় একটি হোটেলে যৌনকর্মীরা একে অপররের ওপর প্রস্রাব করাকালে ট্রাম্প সেখানে উপস্থিত ছিলেন, এমন দাবি আসার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হয়তো সহজেই রাশিয়ার ব্ল্যাকমেইলের শিকার হতে পারেন ভেবে উদ্বিগ্ন ছিলেন বলে দাবি করেছেন কোমি।
এবিসি নিউজের জর্জ স্টিফানোপোলাসকে দেওয়া বিশেষ ওই সাক্ষাৎকারে কোমি জানিয়েছেন, ট্রাম্পের মস্কো সফর নিয়ে যে অভিযোগ উঠেছে তার প্রমাণ রাশিয়ার হাতে আছে কি-না তার বিষয়ে তিনি নিশ্চিত না হলেও তা থাকার ‘সম্ভাবনা’ আছে।

কোমি জানান, মস্কোর ওই হোটেলে রাত যাপন করেননি এবং যৌনকর্মীদের নিয়ে দাবি করা ঘটনাটি সত্য নয় বলে ট্রাম্প তাকে জানিয়েছেন।

সাক্ষাৎকারে কোমি বলেছেন, “একজন ব্যক্তি, যিনি নারীদের বিষয়ে এমনভাবে কথা বলেন এবং ব্যবহার করেন যেন তারা মাংসখণ্ড, যিনি ছোট-বড় সব বিষয়ে সমানে মিথ্যা কথা বলেন এবং আমেরিকার লোকজনকে তা বিশ্বাস করতে বলেন, নৈতিকভাবে সেই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার যোগ্য নন।

“নৈতিকভাবে তিনি প্রেসিডেন্ট হওয়ার অযোগ্য।”

মঙ্গলবার এসব বিষয় নিয়ে কোমির লেখা একটি বই প্রকাশ পেতে যাচ্ছে, যার নাম রাখা হয়েছে, ‘এ হায়ার লয়ালিটি’। এই বইটির নামও তার সঙ্গে ট্রাম্পের কথপোকথন থেকে নেওয়া হয়েছে বলে সাক্ষাৎকারে এবিসিকে জানিয়েছেন কোমি।

এই বইয়ের আসন্ন প্রকাশ ও এসিবিতে দেওয়া কোমির সাক্ষাৎকারকে কেন্দ্র করে কোমির বিরুদ্ধে রোববার সকালে বেশ কিছু নতুন টুইট করেছেন ট্রাম্প।

এর একটিতে তিনি বলেছেন, “পিচ্ছিল জেমস কোমি, যে ব্যক্তির শেষটা সবসময় খারাপ হয় এবং যিনি অচল (তিনি স্মার্ট নন!), এফবিআইয়ের ইতিহাসে সবচেয়ে খারাপ পরিচালক হবেন!”