DMP-Traffic

বাংলা বর্ষবরণে ঢাকা মহানগর ট্রাফিক বিভাগ যান চলাচলে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পহেলা বৈশাখ শনিবার রাজধানীর রমনা বটমূল, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, শিশু পার্ক, চারুকলা ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়, বাংলা একাডেমি, দোয়েল চত্বর, শিশু একাডেমি, হাই কোর্ট ও সংলগ্ন এলাকায় প্রচুর জনসমাগম হবে। তাই এসব এলাকায় সুষ্ঠু যানবাহন চলাচলে ট্রাফিক বিভাগ এ ব্যবস্থা নিয়েছে।

এসব এলাকায় ভোর থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চালানোর সময়সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে বলে ঢাকার পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন। তবে ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ডিএমপি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার বলেন, জনসমাগম বেশি হবে বলেই এসব এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশপাশি ট্রাফিক ব্যবস্থায় বেশ পরিবর্তন আনা হয়েছে। এসব পরিবর্তনের মধ্যে থাকছে বিভিন্ন সড়ক বন্ধ, ডাইভারশন, বিকল্প রুট এবং পার্কিংয়ের ব্যবস্থা।

যেসব রাস্তায় চলবে যানবাহন

মিরপুর রোড দিয়ে যেসব গাড়ি গুলিস্তান যাবে সেগুলোকে মিরপুর রোড সায়েন্স ল্যাবরেটরি, নিউ মার্কেট হয়ে আজিমপুর বকশীবাজার চাঁনখারপুল দিয়ে গুলিস্তান যেতে বলা হয়েছে।

আর রাসেল স্কয়ার থেকে যানবাহন সোনারগাঁও রেইনবো-মগবাজার-মালিবাগ-রাজমনি-ইউবিএল হয়ে গুলিস্তান যাবে।

মহাখালী থেকে সাত রাস্তা হয়ে মগবাজার-কাকরাইল-রাজমনি-ইউবিএল হয়ে গুলিস্তান যেতে বলা হয়েছে।

ফার্মগেইট থেকে সোনারগাঁও-বাংলামোটর-মৌচাক ও মালিবাগ দিয়ে খিলগাঁও যাবে; আর ফার্মগেইট থেকে মতিঝিলের গাড়িগুলো যাবে সোনারগাঁও-বাংলামটর-মৌচাক-মগবাজার-কাকরাইল চার্চ-রাজমনি ও পল্টন হয়ে।
যেসব রাস্তা বন্ধ থাকবে
বাংলামোটর থেকে রূপসী বাংলা, শাহবাগ থেকে টিএসসি হয়ে দোয়েল চত্বর পর্যন্ত রাস্তা বন্ধ থাকবে। আবার রূপসী বাংলা থেকে কাকরাইল, মৎস্য ভবন থেকে কদম ফোয়ারার রাস্তাও বন্ধ থাকবে।

এছাড়া মৎস্য ভবন হতে শাহবাগ-কাঁটাবন এবং পলাশী হতে শহীদ মিনার, দোয়েল চত্বর হতে হাই কোর্ট ক্রসিং এবং বকশীবাজার থেকে শহীদ মিনার হয়ে টিএসসির রাস্তা বন্ধ থাকবে।

শহীদুল্লাহ হল ক্রসিং থেকে দোয়েল চত্বর এবং নীলক্ষেত থেকে টিএসসি পর্যন্ত রাস্তাও বন্ধ থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

রমনা পার্ক ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানকেন্দ্রিক যানবাহন ডাইভারশন

সোনারগাঁও ক্রসিং, বাংলামোটর ক্রসিং, পরীবাগ গ্যাপ, নেভালচিফ গলি, সাকুরার গলি, পুলিশ ভবন ক্রসিং, সবজিবাগান ক্রসিং, মিন্টো রোডের পূর্ব প্রান্ত, অফিসার্স ক্রসিং, সুগন্ধা ক্রসিং, কাকরাইল চার্চ ক্রসিং, শিল্পকলা একাডেমি, দুদকের গলি, কার্পেট গলি, মৎস্য ভবন ক্রসিং, ইউবিএল ক্রসিং, জিরো পয়েন্ট, হাই কোর্ট ক্রসিং, রোমানা চত্বর ক্রসিং, বকশীবাজার ক্রসিং, পলাশী ক্রসিং, নীলক্ষেত ক্রসিং, কাঁটাবন ক্রসিং, আজিজ সুপার মার্কেট ক্রসিং, প্রশাসন একাডেমি গলি ও শাহবাগ ক্রসিং থেকে যানবাহন ডাইভারশন করা হবে।

যেসব স্থানে গাড়ি রাখা যাবে

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উত্তর হতে আসা গাড়িগুলো হলি ফ্যামিলি হাসপাতাল রোড ও পুরাতন এলিফ্যান্ট রোডে থাকবে; আর পূর্ব-দক্ষিণ দিক থেকে আসা গাড়ি আব্দুল গণি রোডে রাখতে হবে।

দক্ষিণ দিকের গাড়ি কার্জন হল থেকে বঙ্গবাজার হয়ে ফুলবাড়িয়ায় রাখা যাবে, আর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গাড়ি মৎস্য ভবন থেকে কার্পেট গলি ও শিল্পকলা একাডেমি গলিতে রাখা যাবে।

ভিআইপি ও গণমাধ্যমের গাড়ি সুগন্ধা থেকে অফিসার্স ক্লাবে, আর দক্ষিণ-পশ্চিম দিকের গাড়ি কাঁটাবন হতে নীলক্ষেত হয়ে পলাশী পর্যন্ত রাখা যাবে।

যে কোনো প্রয়োজনে ৯৯৯, ১০০, ৯৫৫৫৯৯৩৩, ০১৭১৩৩৯৮৩১১ ও ০১৭১১০০০৯৯০ নম্বরে নগরবাসীকে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া নববর্ষের অনুষ্ঠানে সন্দেহজনক কোনো সরঞ্জাম, বস্তু, ব্যাগ সাথে না রাখতে বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে ডিএমপির বিজ্ঞপ্তিতে।