Nasim-Inner

সড়ক দুর্ঘটনায় ডান হাত হারানো রাজীব হোসেনের চিকিৎসার যাবতীয় খরচ বহন করবে সরকার। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ ঘোষণা দিয়েছেন। এ ছাড়া রাজীব সুস্থ হলে তাকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে বলে তিনি জানান। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিতুমীর কলেজের স্নাতকের ছাত্র রাজীব হোসেনের চিকিৎসা এবং তার স্বাস্থ্যের খোঁজ নিতে যান মোহাম্মদ নাসিম। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রাজীবকে দেখার পর মন্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, রাজীব মা-বাবা হারানো এতিম। এ কারণে সরকার তার যাবতীয় চিকিৎসার খরচ বহন করবে। তার আরও দুই ভাইয়ের ভবিষ্যতের দিকটি খেয়াল রেখে তিনি সুস্থ হলে তাকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে।

এ সময় সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী নাসিম বলেন, রাজীব সুস্থ হওয়ার পর মেডিকেল বোর্ড যদি মনে করে, তার হাত পুনঃস্থাপন করা যাবে, তাহলে সরকারের পক্ষ থেকে এ ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।

রাজীব সুস্থ আছেন বলে মন্ত্রী নাসিম সাংবাদিকদের জানালে এ সময় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, তার অবস্থা এখনো আশঙ্কামুক্ত নয়। এ কারণে তার সিটিস্ক্যান করানো হবে। তার সুস্থতার বিষয়ে দোয়া চান।

গত মঙ্গলবার বিআরটিসির একটি দোতলা বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন ছাত্র রাজীব হোসেন। এ সময় স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে পেরিয়ে যাওয়ার বা ওভারটেক করার জন্য বাঁ দিকে গা ঘেঁষে পড়ে। দুই বাসের প্রবল চাপে রাজীবের হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে পথচারীরা তাঁকে শমরিতা হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে রাজীবের চিকিৎসা ব্যয়ের বিল এক দিনেই দাঁড়িয়েছিল এক লাখ ২৬ হাজার টাকা। স্বজনেরা সব টাকা পরিশোধ করতে পারেননি। ৩৫ হাজার টাকা দিয়েছেন। বাকি টাকা পরে দেবেন—এমন লিখিত দেওয়ার পর বিকেলে রাজীবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের অনুমতি দেওয়া হয়।

শমরিতা হাসপাতালের বিলের বিষয়ে সাংবাদিকেরা দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সেখানে কত খরচ হয়েছে, তার হিসাব নেওয়া হবে। ওই টাকাও সরকারের পক্ষ থেকে পরিশোধ করা হবে।

এর আগে আজ দুপুরে ঢাকা মেডিকেলের জরুরি বিভাগের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আহত রাজীবের খালা জাহানারা বেগম। সেখানে রাজীবের মাদ্রাসাপড়ুয়া ছোট ভাইও উপস্থিত ছিল। জাহানারা বেগম বলেন, রাজীব এতিম হওয়ার কারণে তাকে দেখার কেউ নেই। এখন তো তার এক হাত নেই। এ কারণে তিনি সরকারের কাছে তার ভাগনের হাত প্রতিস্থাপনের অনুরোধ জানান।

গতকাল বুধবার দুই বাসের চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে রাজশাহীর সাবেক মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন উপস্থিত ছিলেন। এ সময় ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সামন্ত লাল সেন মন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।