cross

কক্সবাজারের চকরিয়ায় চার বছরের শিশু ধর্ষণ মামলার অভিযুক্ত আসামি আব্দুর রহিম (২০) র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে চকরিয়া ডুলাহাজারার উলুবনিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর রুহুল আমিন জানান, রাতে চকরিয়া থানার ডুলাহাজারার উলুবনিয়ায় সন্ত্রাসীদের সঙ্গে র‌্যাবের গুলিবিনিময় হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আব্দুর রহিমকে (২০) পাওয়া যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি ওয়ানশুটার গান, ৩ রাউন্ড গুলি ও ২টি খালি খোসা উদ্ধার করা হয়।
স্থানীয় সূত্র জানায়, ২৬ মার্চ ডুলাহাজারা উলুবনিয়া এলাকার আক্তার আহমদের ছেলে রহিম উদ্দিন (২০) প্রতিবেশী পাঁচ বছর বয়সী এক শিশুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটির অবস্থা গুরুতর দেখে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠান।

স্থানীয়রা জানায়, আব্দুর রহিমের বিরুদ্ধে নারী সংক্রান্ত আরো একাধিক ঘটনা সামাজিকভাবে সামাধান করা হয়েছে। তাই অবুঝ শিশুর সঙ্গে সংগঠিত ঘটনায় তার কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়ে আসছিল তারা।

চকরিয়া থানার ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীর জানান, শিশু ধর্ষণের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে এজাহার দেয়ার পর এটি মামলা হিসেবে রুজু করা হয়েছে। এর দুদিনের মাথায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে অভিযুক্ত রহিম মারা গেছে বলে খবর পেয়েছি। মরদেহ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।