12

উইন্ডোজ ১০-এর নতুন সংস্করণ আনতে কাজ করছে মাইক্রোসফট। এতে ‘উইন্ডোজ মেইল’ অ্যাপে পরিবর্তন আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সফটওয়্যার জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

নতুন আপডেটে মেইল অ্যাপ থেকে কোনো লিংকে ক্লিক করা হলে তা মাইক্রোসফট এজ ব্রাউজারে খোলা হবে। গ্রাহক যদি উইন্ডোজ ১০-এ তার ডিফল্ট ব্রাউজার ক্রোম বা ফায়ারফক্স দিয়ে রাখেন তাহলে মেইল অ্যাপ তা এড়িয়ে এজ ব্রাউজারে লিঙ্ক খুলবে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে প্রযুক্তি সাইট ভার্জ।

শীঘ্রই “মেইল অ্যাপে এই পরিবর্তনের পরীক্ষা শুরু করা হবে” বলে শুক্রবার মাইক্রোসফট-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

নতুন এই পরিবর্তন অনেকের জন্যই বিরক্তির কারণ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগেও এমনটা করেছে মাইক্রোসফট। প্রতিষ্ঠানের ভয়েস অ্যাসিস্টেন্ট সেবা কর্টানায় বিং সার্চ ব্যবহার করতে গ্রাহকদের বাধ্য করা হয়েছে। আর সার্চের ফলাফল দেখানো হয় এজ ব্রাউজারে। এক্ষেত্রেও ডিফল্ট ব্রাউজার ক্রোম বা ফায়ারফক্স থাকলে তা এড়িয়ে যায় উইন্ডোজ ১০।

এক ব্লগ পোস্টে মাইক্রোসফট-এর ডোনা সরকার বলেন, “সব সময়ের মতো এবারও আমরা উইন্ডোজ ইনসাইডার প্রোগ্রাম (ডাব্লিউআইপি) কমিউনিটির প্রতিক্রিয়া দেখবো।”

ভার্জ-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, এই অপ্রয়োজনীয় পরিবর্তনের জন্য নিশ্চিতভাবেই অনেক প্রতিক্রিয়া পাবে মাইক্রোসফট এবং প্রতিষ্ঠানটি তা এড়িয়ে যাবে না।

উইন্ডোজ গ্রাহকদের ক্রোম ব্রাউজারের পরিবর্তে এজ ব্যবহারে সন্তুষ্ট করতে অনেকভাবেই চেষ্টা করছে মাইক্রোসফট। উইন্ডোজ ১০-এর ডিফল্ট ব্রাউজার পরিবর্তনও জটিল করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

ক্রোম ব্রাউজারে ডিভাইসের ব্যাটারি বেশি স্থায়ী হয়, গুগলের এমন দাবী তুচ্ছ প্রমাণিত করতে ভিডিও বানিয়েছে মাইক্রোসফট। আর এজ ব্রাউজারের প্রচারণা চালাতে নিজে থেকে বেশ কিছু বিরক্তিকর বিজ্ঞাপনও দিয়ে থাকে উইন্ডোজ ১০।

এত চেষ্টার পরও ডেস্কটপ পিসি’র জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্রাউজারের স্থান ধরে রেখেছে ক্রোম, বলা হয়েছে ভার্জ-এর প্রতিবেদনে।