bosontho

গাছে রক্তরাঙা শিমুল-পলাশ, ডালে কোকিল। বাতাসে সৌরভ- প্রকৃতির এ রঙ লেগেছে মনেও। মাতোয়ারা মন পাগল মহুয়ায়। ষড়ঋতুর বাংলাদেশে সবার সবচেয়ে প্রিয়টি যে মঙ্গলবার শুরু হয়েছে। তাইতো বাসন্তি রঙে সেজেছে সারাদেশ। ডালে ডালে আগুন রাঙা ফুল। ফুলে ফুলে ভ্রমরও করছে খেলা। পলাশ-শিমুলের মেলায় বইছে কোকিলের কুহুতান। বসন্তকে এজন্যই প্রাণের রঙ বলা হয়।

বাংলাদেশের প্রতিটি ঋতু যখন তার আপন রঙে সাজে, তখন সেই রঙ এসে আমাদের প্রাণে দোলা দেয়। বৈশাখের লাল-সাদা, শরতের লীল, ফাল্গুনের হলুদ-বাসন্তি রঙ আমাদের মনে করিয়ে দেয় এসো, সাজো আজ প্রকৃতির মাদলে।

তাই আজ শাহবাগ ও চারুকলা প্রাঙ্গণে সবাই সেজেছে বসন্তের রঙে। সবাই হলুদ, বাসন্তি রঙের শাড়ি পরে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে বসন্তকে। অনেকেই তার হলুদ শাড়ির সাথে রেখেছে বাহারি ফুল।

কেউ কেউ ফুলের তাজ মাথায় দিয়েছে। তাদের সাজ দেখে মনে হয়, যেন বনের রানী ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

পহেলা ফাল্গুন বাংলা পঞ্জিকার একাদশতম মাস ফাল্গুনের প্রথম দিন ও বসন্তের প্রথম দিন। গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে ১৩ ফেব্রুয়ারি পহেলা ফাল্গুন পালিত হয়। বসন্ত বরণে ঢাকায় বিশেষ উৎসব পালিত হচ্ছে।

বাংলাদেশে জাতীয় বসন্ত উৎসব উদযাপন পরিষদ এই দিনকে বরণ করতে চারুকলার বকুলতলায় এবং ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবর উন্মুক্ত মঞ্চে উৎসব আয়োজন করেছে।