???????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????

সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি একটি ক্রিকেট ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে যা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) দুর্নীতি দমন ইউনিটকেও (আকসু) নড়িয়ে দিয়েছে। ফের ম্যাচ ফিক্সংয়ের জল্পনা উস্কে দিয়েছে। আজমান অলস্টার লিগের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট ঘিরে সামনে চলে এলো বহু বিতর্কিত ক্রিকেট মাঠে ফিক্সিংয়ের বিষয়টি।
সংযুক্ত আরব আমিরাতে হওয়া এই টুর্নামেন্টের চতুর্থ ম্যাচে খেলা হচ্ছিল দুবাই স্টার্স বনাম শারজা ওয়ারিয়র্সের। যে ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে কিভাবে ব্যাটসম্যানরা আত্মসমর্পণ করছেন ক্রিজে। স্টাম্পিং ও রান আউট হয়ে একের পর এক উইকেট দিয়ে আসছেন প্রতিপক্ষের কাছে।
গেলো ২৪ জানুয়ারির ওই ম্যাচে ২০ ওভারে ১৩৬ রান তোলে শারজা ওয়ারির্স। অন্যদিকে রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ৪৬ রানেই অলআউট হয়ে যায় দুবাই স্টার্স। এমন মনে হচ্ছিল বিপক্ষকে উইকেট উপহার দিচ্ছেন ব্যাটসম্যানরা। তাদের ইনিংসে রয়েছে পাঁচটি স্টাম্পিং এবং ৩টি রান আউট। অদ্ভুতভাবে আউট হয়ে যাচ্ছিলেন ব্যাটসম্যানরা।
খেলার ফুটেজ দেখে তারকা ক্রিকেটাররাও অবাক হয়েছেন। অনেকেই মুখ খুলেছেন এনিয়ে। ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভন ভিডিও দেখে জানিয়েছেন, এটা অবিশ্বাস্য!
ভনের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন স্বদেশী কেভিন পিটারসনও।
এদিকে জিম্বাবুয়ের তারকা ক্রিকেটার ব্র্যান্ডন টেইলরও একইভাবে এই ক্রিকেট ফুটেজ দেখে বিস্মিত।
আইসিসি এরইমধ্যে ম্যাচটি নিয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। আকসুর জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল জানিয়েছেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের আজমান অলস্টার লিগে এই ঘটনা ঘটেছে। দুর্নীতি দমন শাখা বর্তমানে বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।
যদিও তদন্তের গতি নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি। এই ম্যাচের ক্রিকেটার ও অফিসিয়ালদের সঙ্গে কথা বলছে আইসিসির তদন্তকারী কর্মকর্তারা।