EB

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারীর ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে শিক্ষক সমিতি। রোববার বেলা ১১ টায় অনুষদ ভবনের সামনে ক্লাস বর্জন করে মানববন্ধন করেন শিক্ষকরা। একই সাথে আগামী তিন দিন এক ঘণ্টা ক্লাস বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

মানববন্ধনে শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শাহিনুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. সেলিম তোহা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আব্দুস সাত্তার, সাবেক প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন, শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি প্রফেসর ড. এমতাজ হোসেন, প্রফেসর ড. তোজাম্মেল হোসেন, প্রফেসর ড. এম ইয়াকুব আলী, প্রফেসর ড. এ কে এম মতিনুর রহমান, প্রফেসর ড. নজিবুল হক, শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. এ এম রেজওয়ান, মার্কেটিং বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. জাকারিয়া রহমান, প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান, প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, প্রফেসর ড. রুহুল কে এম সালেহ, প্রফেসর আব্দুল মুঈদ, প্রক্টর প্রফেসর ড. মাহবুবর রহমান, প্রফেসর ড. মাহবুবুল আরফিন, প্রফেসর ড. এ এইচ এম আক্তারুল ইসলাম, প্রফেসর ড. আসম তরিকুল ইসলাম, প্রফেসর ড. ইদ্রিস আলী, টিএসসিসি’র পরিচালক ড. বাকী বিল্লাহ বিকুল ও কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক মীর মোর্শেদুর রহমানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পর্যায়ের শিক্ষক-কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভা পরিচালনা করেন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ অলী উল্যাহ।

সভায় বক্তারা বলেন, ভাইস চ্যান্সেলরের ওপর হামলার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

সমাবেশ থেকে হামলার প্রতিবাদে ২৯ ও ৩০ জানুয়ারি বেলা ১১ টা হতে ১২ টা পর্যন্ত ১ ঘণ্টা শিক্ষকদের ক্লাস বর্জনের ঘোষণা করা হয়েছে।

ঘটনার প্রতিবাদে কর্মকর্তা সমিতি আগামী ২৮- ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত ৩ দিনব্যাপী কালো ব্যাজ ধারণ কর্মসূচি পালন শুরু করেছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা থানার বড়দা নামক এলাকায় দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হন।