Eye Blood

পৃথিবীর মানুষের জন্য আগামী দিনগুলো যে সুখের হবে না, তা অতীতে একাধিক ভবিষ্যতদ্রষ্টা জানিয়ে গিয়েছিলেন। তার বেশ কিছু লক্ষণও ক্রমেই প্রকাশ পাচ্ছে। জলবায়ু’র বিরূপ প্রভাবের কারণে ভূমিকম্প, সুনামি মতো ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশ্বের শক্তিধর দু’টি দেশের নেতারা এরই মধ্যে হামলার খায়েশে পরমাণু বোমার শরীরে হাত বুলাচ্ছেন।

তবে সেই সঙ্গে যোগ হয়েছে ভয়ঙ্কর এক মহামারির আশঙ্কা। সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় বিচিত্র রোগে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসকেরা এই রোগ এখনও শনাক্ত করতে পারেননি। কিন্তু তারা অবাক হয়ে রোগীর চোখ দিয়ে অজানা রোগের কারণে অনর্গল রক্ত বের হতে দেখেছেন।

রোগ নির্ণয় করতে না পারলেও অবশ্য চিকিৎসকরা এর নাম দিয়েছেন ‘ক্রিমেন কঙ্গো হেমোরেজিক ফিভার’। তাদের আশঙ্কা এই রোগ চলতি বছরই মহামারির আকার নেবে।

মৃত সেই কিশোরীর রক্ত পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসকেরা বলছেন, এই রোগের ফলে শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয় রক্তক্ষরণ।

এখন পর্যন্ত গবেষকদের ধারণা, কোনো অপরিচিত পোকার কামড়ে কিংবা সেই পোকার কামড়ে সংক্রামিত কোনও প্রাণীর মাংস খেলে এই রোগ মানুষের দেহে ছড়িয়ে পড়ে।

দক্ষিণ আফ্রিকা ছাড়াও সম্প্রতি উগাণ্ডাতেও একই রোগে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানকার চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, আশ্চর্য রোগে আক্রান্তদের প্রচণ্ড জ্বরের সঙ্গে বমি, পেশীতে ব্যথা, ডায়রিয়া এবং শরীরের বিভিন্ন অংশ থেকে রক্তক্ষরণ হতে দেখেছেন। এখনও পর্যন্ত এই রোগের কোনো প্রতিষেধক না থাকায় চিকিৎসকদের চোখের সামনেই তারা মৃত্যুবরণ করেন।