rnm

২০১৭ সালটি এক কথায় অবিশ্বাস্য কেটেছে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর। ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে পাঁচ পাঁচটি শিরোপা জয়ের পাশাপাশি জিতে নিয়েছেন ব্যক্তিগত সব বড় পুরস্কারই। কিন্তু দলীয় সাফল্য ও ব্যক্তিগত সেই পুরস্কারের ঢালিও রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ সুপারস্টারের বাজার মূল্য আকাশে তুলতে পারেনি। বরং নিম্নগামী। হ্যাঁ, ৩২ বছর বয়সী রোনালদোর বাজার মূল্য এতোটাই নিম্নগামী যে সর্বোচ্চ বাজার মূল্যধারী নেইমার-মেসির ধারের কাছেও নেই। অবিশ্বাস্য শোনালেও সত্যি, রোনালদোর চেয়ে নেইমার-মেসির বাজার মূল্য প্রায় ২.৫ গুণ বেশি!

মেসি-নেইমার না লিখে বারবার নেইমার-মেসি লেখা হচ্ছে, কারণটা এতোক্ষণে ফুটবলপ্রেমীরা অবশ্যই বুঝে ফেলার কথা। রোনালদোকে তো বটেই, লিওনেল মেসিকেও টপকে ইউরোপের শীর্ষ ৫টি লিগের ফুটবলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বাজার মূল্য এখন নেইমারের।

খেলোয়াড়দের বয়স, খেলার পজিশন, চুক্তির মেয়াদ, পারফরম্যান্সসহ আরও অনেক বিষয় বিবেচনা করে ফুটবলারদের বাজারমূল্য নিরূপণ করে থাকে সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআইইএস। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতিক ইউরোপের শীর্ষ ৫টি লিগের সর্বোচ্চ বাজার মূল্যধারী শীর্ষ ১০০ জন ফুটবলারের তালিকা প্রকাশ করেছে। তাতে সবার উপরে আছেন পিএসজির ফরোয়ার্ড নেইমার।

সিআইইএসের গবেষণায় উঠে এসেছে, পিএসজির ২৫ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের বর্তমান বাজার মূল্য ২১৩ মিলিয়ন ইউরো। গত আগস্টে বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনে এনেছে পিএসজি। মানে চুক্তির এই অঙ্ক থেকে তার বাজার মূল্য এখন মাত্র ৯ মিলিয়ন ইউরো কম!

বাজার মূল্যের দিক থেকে নেইমারের পরেই আছেন মেসি। বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের বর্তমান বাজার মূল্য ২০২ মিলিয়ন ইউরো। ভাবছেন মেসির পরের বুঝি রোনালদো? মোটেই না। শীর্ষ তিনে দূরের কথা, ৫ বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী রিয়ালের পর্তুগিজ তারকা শীর্ষ ১০, ২০, ৩০-এও জায়গা করে নিতে পারেননি। তিনি আছেন সেই ৪৯ নম্বরে! তার বর্তমান বাজার মূল্য মাত্র ৮০.৪ মিলিয়ন ইউরো।

বাজার মূল্যের ভিত্তিকে নেইমার-মেসির পরই আছেন টটেনহামের ইংলিশ ফরোয়ার্ড হ্যারি কেন। ২০১৭ সালে মেসি-রোনালদোকে টপকে সবচেয়ে বেশি গোল করা হ্যারি কেনের বর্তমান বাজার মূল্য ১৯৪.৭ মিলিয়ন ইউরো। মানে, বাজার মূল্যে ৫ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসির ঘাড়ের উপর তপ্ত নিঃশ্বাসই ফেলছেন ২৪ বছর বয়সী হ্যারি কেন।

হ্যারি কেনের উপর আবার তপ্ত নিঃশ্বাস ফেলছেন পিএসজির ফরাসি তরুণ কিলিয়ান এমবাপে। নেইমারের ক্লাব সতীর্থের বর্তমান বাজার মূল্য ১৯২.৫ মিলিয়ন পাউন্ড। তালিকার ৫ নম্বরে জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা। তার বাজার মূল্য ১৭৪.৬ মিলিয়ন ডলার।

৬ নম্বরে টটেনহামের হ্যারি কেনের স্বদেশিী সতীর্থ ডেলে আলি (১৭১.৩ মিলিয়ন), ৭ নম্বরে ম্যানচেস্টার সিটির বেলজিয়ান মিডফিল্ডার কেভিন ডি ব্রুইন (১৬৭.৮), ৮ নম্বরে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড রোমেলু লুকাকু (১৬৪.৮), ৯ নম্বরে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের ফরাসি ফরোয়ার্ড আতোইন গ্রিজমান (১৫০.২) এবং ১০ নম্বরে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফরাসি মিডফিল্ডার পল পগবা (১৪৭.৫)।

সম্প্রতি দলবদলের ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ চুক্তির রেকর্ড গড়ে ফিলিপে কুতিনহোকে দলে ভিড়িয়েছে বার্সেলোনার। গণমাধ্যমের দাবি অনুযায়ী, চুক্তির অঙ্কটা ১৬০ মিলিয়ন ইউরো। সেই কুতিনহোর বাজার মূল্য ১২৩ মিলিয়ন ইউরো। যা ২৫ বছল বয়সী ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গারকে রেখেছে তালিকার ১৬ নম্বরে।