goole

সম্প্রতি ক্যামেরার একটি ‘গুগল লেন্স’ নতুন সফটওয়্যার ছেড়েছে গুগল। ‘গুগল লেন্স’ আপনার চারপাশের পৃথিবীকে বিশ্লেষণ করে সেটি সম্পর্কে আপনাকে ইন্টারনেটে সুলভ সব তথ্য আপনাকে জানিয়ে দেবে। এ বছরের শুরুতে গুগলের নতুন পণ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই সফটওয়্যারটি বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেয়া হয়।

গুগলের ফোন পিক্সেল ২ বাজারে ছাড়ার সময় থেকেই গুগল লেন্স ব্যবহার করা যাচ্ছিল। তবে সেটি ব্যবহার করে কেবল গুগল ফটোস অ্যাপের ছবিগুলো বিভিন্ন অংশ সম্পর্কে ইন্টারনেট সার্চ দেয়া যেত। এখন সফটওয়ারটির যে সংস্করণটি ছাড়া হচ্ছে সেটি গুগল ফটোস অ্যাপটি ছাড়াও স্বাধীনভাবে ব্যবহার করা যাবে।

আগে শুধু মাত্র ধারণ করা স্থিরচিত্র গুগল লেন্স দিয়ে বিশ্লেষণ করা যেত। এখন ফোন ব্যবহার করতে করতেই কোনকিছুর দিকে ক্যামেরা তাক করে সেটি সম্পর্কে ইন্টারনেট সার্চ করা যাবে। তবে পিক্সেল ফোন ছাড়া অন্য ফোনে আপাতত এটি ব্যবহার করা যাবে না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন গুগল লেন্স একেবারেই নতুন সফটওয়্যার হলেও এটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটাতে যাচ্ছে। আপাতত অ্যাপটি একটি টেক্সট বা লেখা কোন ভাষার তা খুঁজে বের করা এবং বারকোড স্ক্যান করার জন্য ব্যবহার করা যাবে। সেই সঙ্গে সফটওয়্যারটি বই, সিনেমা, শিল্পকর্ম ও বিখ্যাত বিভিন্ন স্থানের ছবি চিনতে পারবে।

বর্তমানে সীমিত ক্ষেত্রে সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা গেলেও এর প্রভাব সুদূরপ্রসারী। এখন আর কোনো কিছু দেখে সেটি টাইপ করে লিখে ইন্টারনেটে খুঁজতে হবে না। যা সম্পর্কে জানতে চাইছেন তার দিকে ক্যামেরা তাক করে ছবি তুলে গুগল লেন্স ব্যবহার করে সেটি ইন্টারনেটে খুঁজতে পারবেন।ভবিষ্যতে গুগল লেন্সের বিভিন্ন বস্তু চিনার ক্ষমতা আরও বাড়বে বলে মনে করছে গুগল। এ কারণে প্রতিষ্ঠানটি ‘গুগল লেন্সকে’ সাম্প্রতিক সময়ে তাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পণ্য হিসেবে বিবেচনা করছে।