cable

বহুল প্রতীক্ষিত দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল চালু হচ্ছে আগামী রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর)। ওইদিন সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ‘সি-মি-উই-৫’ উদ্বোধন করবেন। এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

সি-মি-উই-৫ কনসোর্টিয়ামবাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মনোয়ার হোসেন জানান, ১০ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল উদ্বোধনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

উদ্বোধনের সময় তিনি নিজে কুয়াকাটায় দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের ল্যান্ডিং স্টেশনে উপস্থিত থাকবেন জানিয়ে আরও বলেন, ‘ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদারও সেখানে উপস্থিত থাকবেন। উদ্বোধনের দিন থেকে আমরা ২০০ জিবিপিএস (গিগাবাইট পার সেকেন্ড) ব্যান্ডউইথ পাব। পর্যায়ক্রমে তা ১ হাজার ৫০০ জিবিপিএসে উন্নীত হবে।’

মো. মনোয়ার হোসেন আরও বলেন, ‘সি-মি-উই-৫ কনসোর্টিয়াম আমাদেরকে ১ হাজার ৫০০ জিবিপিএসই ব্যান্ডউইথ দিয়ে দিচ্ছে। কিন্তু আমাদের বাজার কতটা তৈরি, কতটুকু প্রয়োজন এসব আগে জানতে হবে। বাজারে যদি ব্যান্ডউইথের চাহিদা না থাকে তাহলে বেশি নিয়ে আমরা কি করব।’

এর আগে, গত ২১ ফ্রেব্রুয়ারি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে এই কনসোর্টিয়ামের উদ্বোধন হয়। গত ১৬ জানুয়ারি হাওয়াইয়ের হনুলুলুতে ২০ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ২৪ টেরাবাইট পার সেকেন্ড (টিবি/এস) গতির এই সি-মি-উই-৫ প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়। এই কনসোর্টিয়ামে যুক্ত রয়েছে বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশ এবং এই ক্যাবলের মোট ল্যান্ডিং পয়েন্ট রয়েছে ১৮টি।
প্রসঙ্গত, ‘সি-মি-উই-৫’ হলো দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া-মিডল ইস্ট-ওয়েস্টার্ন ইউরোপ-৫-এর সংক্ষিপ্ত রূপ। এই কনসোর্টিয়ামে রয়েছে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, মিয়ানমার, বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, জিবুতি, ইয়েমেন, সৌদি আরব, মিসর, ইতালি ও ফ্রান্স।