0

ভারতের কর্ণাটকে হিন্দুত্ববাদ-বিরোধী এক সিনিয়র সাংবাদিককে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ওই সাংবাদিকের নাম গৌরী লঙ্কেশ। মঙ্গলবার রাতে বেঙ্গালুরুতে নিজ বাড়ির সামনেই দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে হত্যা করে। গৌরী লঙ্কেশ ঘোষিতভাবেই হিন্দু দক্ষিণপন্থীদের সমালোচক ছিলেন।

বেঙ্গালুুরুর পুলিশ কমিশনার সুনীল কুমার জানান, ‘মঙ্গলবার রাতে যখন তিনি বাড়ি ফিরছিলেন, তখন বাড়ির ঠিক সামনেই গুলি চালানো হয়। ঠিক কী কারণে এই হামলা হয়েছে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না।’
গৌরী লঙ্কেশ ‘লঙ্কেশ পত্রিকা’ নামক একটি পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন। তিনি তার পত্রিকার মাধ্যমে ‘কমিউনাল হারমনি ফোরাম’ নামে একটি গোষ্ঠীকে ক্রমাগত উৎসাহ দিয়ে গেছেন, যেখানে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সপক্ষে এবং দক্ষিণপন্থী হিন্দুত্ববাদের বিপক্ষে মতামত প্রকাশ করা হয়।

তার পত্রিকায় ২০০৮ সালে ছাপা কয়েকটি লেখার জন্য মানহানির মামলা করেছিলেন বিজেপির সংসদ সদস্য প্রহ্লাদ যোশী। সেই মামলায় তিনি দোষী সাব্যস্ত হন ও ছয় মাসের জেল হয়। সম্প্রতি তিনি জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গৌরী লঙ্কেশের হত্যায় দুঃখ প্রকাশ করে টুইট করেন। ‘খুবই দুর্ভাগ্যজনক। খুবই ভীতিকর। আমরা বিচার চাই।’

কর্ণাটকের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা বি এস ইয়েদুরাপ্পা এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেছেন, এই হত্যা মেনে নেয়া যায় না।