Hajj20170329111106

আজ মঙ্গলবার ২৯ আগস্ট সৌদি আরবে ৭ জিলহজ । হজ পালনেচ্ছুদের উদ্দেশ্যে আজ পবিত্র কাবা শরিফে হজের আরকান-আহকামসহ কিভাবে যথাযথভাবে হজ সম্পাদন করতে হবে তার ওপর গুরুত্বপূর্ণ নসিহত করা হবে।

যারা হজে তামাত্তু পালনে মক্কায় অবস্থান করছেন। তারা ইতিমধ্যে ওমরা সম্পাদন করে হালাল হয়ে গেছেন। তারা আজ থেকে আবার হজের ইহরাম বেঁধে হজের প্রস্তুতি গ্রহণ করবেন।

আর যারা হজে কিরান এবং ইফরাদ আদায়ে পবিত্র নগরীতে অবস্থান করছেন, তারা ইহরাম অবস্থায়ই রয়েছেন।

হজযাত্রীদের অনেকেই আজকে বাইতুল্লায় হজের নসিহতের পরপরই রহওয়ানা হবে পবিত্র নগরী মক্কা থেকে ৫ মাইল দূরে অবস্থিত তাবু শহর খ্যাত মিনায়।

আগামীকালই শুরু হবে হজের মূল কার্যক্রম। যে কারণে সব হজযাত্রীই আগামীকাল বুধবার (সৌদি আরবে ৮ জিলহজ) জোহরের নামাজে আগেই পৌছে যাবে মিনায়। সেখানে তারা পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবে।

হজের জন্য যেমন প্রস্তুত প্রায় ২০ লাখ হজযাত্রী; তেমনি প্রস্তুত সৌদি আরবের হজ কর্তৃপক্ষ; প্রস্তুত করা হয়েছে আরাফা, মিনা ও মজদালিফা।

পবিত্র নগরীর প্রতিটি স্থানে কাল ধ্বনিত হবে-
‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লাব্বাইকা লা শারিকা লাকা লাব্বাইক; ইন্নাল হামদা ওয়ান নি’মাতা লাকা ওয়াল মুলক; লা শারিকা লাক।’

আল্লাহ দরবারে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত হজযাত্রীদের সুষ্ঠু, সুন্দর ও সঠিকভাবে হজ সম্পাদনে সাহায্য চাই। আল্লাহ তাদের হজকে কবুল করুন। আমাদেরকেও হজ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।